১৯ অক্টোবর, ২০১৯ || ৪ কার্তিক ১৪২৬

শিরোনাম
  বুয়েট শিক্ষার্থীদের সঙ্গে উপাচার্যের বৈঠক চলছে        আবরার হত্যায় ৫ দিন করে রিমান্ডে অমিত-তোহা     
৫৯৫

আজ আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৭ এপ্রিল ২০১৯  

বৈশাখের এমন সময়ে গরম থাকাটাই স্বাভাবিক। এটিই চিরায়ত আবহাওয়া পরিস্থিতি। তবে তাপমাত্রাটা স্বাভাবিকের চেয়ে গড়ে দুই থেকে তিন ডিগ্রি বেশি হওয়ায় নাভিশ্বাস উঠেছে জনজীবনে। স্থানভেদে কোথাও ৫-৬ ডিগ্রি পর্যন্ত বেশি গরম অনুভূত হচ্ছে। এর সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তনের বাড়তি উষ্ণতা, বাতাসে জলীয় বাষ্পের আধিক্য যুক্ত হয়েছে।

এ ভয়াবহ গরম থেকে দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হয়েছে সুস্পষ্ট লঘুচাপ, যা আজ শনিবার সন্ধ্যা বা রাতে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। যদি এটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেয় তবে নাম হবে হবে ‘ফণী’। এ নামটি বাংলাদেশের দেওয়া।

আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান খান জানান, দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি নিম্নচাপ অবস্থান করছে। সমুদ্রবন্দরগুলোকে এক নম্বর দূরবর্তী সতর্কতার সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। ভারত মহাসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘুচাপটি ঘনীভূত হয়ে একই এলাকায় নিম্নচাপ আকারে অবস্থান করছে।

সর্বশেষ তথ্যে জানা যায়, নিম্নচাপটি গতকাল শুক্রবার দুপুর ১২টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ২১৭০ কিলোমিটার দক্ষিণে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ২০৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ২১৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ২১৩৫ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিল। এটি আরও ঘনীভূত হয়ে উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে।

নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের কাছে সাগর উত্তাল রয়েছে।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ১ নম্বর দূরবর্তী সতর্কতার সংকেত দেখাতে বলা হয়। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌযানগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত গভীর সাগরে বিচরণ না করতে বলা হয়েছে। নিম্নচাপের কারণে আজ শনিবার সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায়, কুমিল্লা অঞ্চলসহ খুলনা ও ঢাকা বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা আছে। এ ছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। অন্যদিকে ঢাকা, মাদারীপুর, নোয়াখালী, রাঙামাটি, ফেনী, রাজশাহী, যশোর, বাগেরহাট, পটুয়াখালী অঞ্চলসহ সিলেট বিভাগের ওপর দিয়ে যে তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে, কিছু কিছু জায়গা থেকে তা প্রশমিত হতে পারে।

গতকাল দেশের সর্বোচ্চ ৩৭ ডিগ্রি সেলিসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে রাঙামাটিতে। ঢাকা ও রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আরও পড়ুন
রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত