২৩ অক্টোবর, ২০২০ || ৭ কার্তিক ১৪২৭

শিরোনাম
  বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ‘টেকসই ভবিষ্যৎ’ নিশ্চিতের আহ্বান প্রধানমন্ত্রী        অবশেষে হাসপাতাল ছাড়লেন ইউএনও ওয়াহিদা        অবশেষে হাসপাতাল ছাড়লেন ইউএনও ওয়াহিদা     
২৫৩

জাফরুল্লাহর শারীরিক অবস্থা ‘ভালো না’, দোয়া চাইল গণস্বাস্থ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৫ জুন ২০২০  

পুরোনো ছবি

পুরোনো ছবি

করোনাভাইরাসে সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। এজন্য প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সকলের কাছে দোয়া চাওয়া হয়েছে।

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ফেসবুক পেজে বলা হয়েছে, ‘ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর জন্য সকলে দোয়া করবেন। উনার শরীর ভালো না। রাতে উনার শ্বাসকষ্ট ছিল। আপনাদের সকলের দোয়া খুব প্রয়োজন।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বর্তমানে উনার স্থা‌পিত প্র‌তিষ্ঠান গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে চি‌কিৎসা নিচ্ছেন।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের চি‌কিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্র‌তি বিশেষ করে ব্রিগেডিয়ার অধ্যাপক ডা. মামুন মুস্তাফি, অধ্যাপক ডা. নজীব এবং তাদের দলের প্র‌তি অকৃ‌ত্তিম ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা।’

তবে করোনায় আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর গত রাতে শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলেও এখন কিছুটা ভালো আছেন। আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় গণস্বাস্থ্যের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. ফরহাদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘ডা. জাফরুল্লাহর শারীরিক অবস্থা রাতে একটু খারাপ হয়েছিল। কারণ হঠাৎ শ্বাসকষ্টটা শুরু হয়েছিল। তবে সকালে দিকে শ্বাসকষ্ট একটু কমছে। সকালে অল্প তরল জাতীয় নাস্তাও করেছেন তিনি।’

ফরহাদ হোসেন আরও বলেন, ‘আইসিইউ বা ভেন্টিলেটরের সাপোর্ট এখনো লাগেনি। তার পরিবারের সদস্যরাও সবাই পাশে আছেন।’

প্রসঙ্গত, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর প্লাজমা থেরাপি নেন ডা. জাফরুল্লাহ। এতে উপকার পাওয়ায় গত ২৮ মে রাতে দ্বিতীয়বারের মতো প্লাজমা নেন। এ ছাড়া গত ৩০ মে রাতে তৃতীয়বারের মতো ডায়ালাইসিস করান তিনি। সেই সঙ্গে ব্রেথিং (শ্বাস-প্রশ্বাস) থেরাপিও নেন ডা. জাফরুল্লাহ।

গত রোববার ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছিলেন, তার স্ত্রী ও ছেলেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ দিন তিনি আরও জানান, তার শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। তিনি অক্সিজেন নিচ্ছেন।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর প্লাজমা থেরাপি নেন ডা. জাফরুল্লাহ। এতে উপকার পাওয়ায় গত ২৮ মে রাতে দ্বিতীয়বারের মতো প্লাজমা নেন। এ ছাড়া গত ৩০ মে রাতে তৃতীয়বারের মতো ডায়ালাইসিস করান তিনি। সেই সঙ্গে ব্রেথিং (শ্বাস-প্রশ্বাস) থেরাপিও নেন ডা. জাফরুল্লাহ।

গত রোববার ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছিলেন, তার স্ত্রী ও ছেলেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ দিন তিনি আরও জানান, তার শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। তিনি অক্সিজেন নিচ্ছেন।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত