১৭ নভেম্বর, ২০১৯ || ২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

শিরোনাম
  বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা        আজ শোকাবহ জেল হত্যা দিবস     
৩০৯

বিড়ালের সঙ্গে যুদ্ধে নেমেছে অস্ট্রেলিয়া, কারণ...

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৭ এপ্রিল ২০১৯  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

দেখতে সুন্দর ও তুলতুলে হলেও বিড়ালই এখন অস্ট্রেলিয়ার মানুষের এক নম্বর শত্রু। বিড়ালের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা প্রচুর সংখ্যক পাখি হত্যা করে। তাই বিড়ালের সঙ্গে যুদ্ধে নেমেছে দেশটি।

সিএনএন-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী ২০২০ সালের মধ্যে অন্তত ২০ লাখ বিড়াল হত্যা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া সরকার। দেশটিতে প্রায় ২০ থেকে ৬০ লাখ বন বিড়াল রয়েছে। এরা প্রতিদিন ১০ লাখেরও বেশি পাখি হত্যা করে। বিড়ালের এই ‘খুনে স্বভাবের’ কারণে দেশটির অনেক প্রজাতির পাখি এখন বিলুপ্তির পথে।

বায়োলজিক্যাল কনভারসেশন জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটিতে বন বিড়ালরা প্রতিবছর সাড়ে ৩১ কোটি এবং পোষা বিড়াল বছরে ৬ কোটি ১০ লাখ পাখি হত্যা করে।

উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্য কুইন্সল্যান্ডে প্রতিটি বিড়ালের খুলির জন্য ১০ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। তবে এই সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ইথিক্যাল ট্রিটমেন্ট অব অ্যানিম্যালস (পিইটিএ)।

তবে এই সমস্যা শুধু অস্ট্রেলিয়াতেই নয়। পোষ্য ও বন বিড়াল উভয় নিয়ন্ত্রণ অথবা কমিয়ে প্রতিবেশী দেশ নিউজিল্যান্ডের এক বিশিষ্ট পরিবেশবিদ বিড়ালমুক্ত ভবিষ্যত গড়ার প্রস্তাব দিয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়ার ইতিহাস অনুযায়ী, দেশটিতে প্রথম বিড়ালের আগমন ঘটে সপ্তদশ শতকে, নির্দিষ্ট কিছু জায়গায়। বংশ বিস্তার করতে করতে বর্তমানে দেশটির ৯৯.৯ শতাংশ এলাকায় বিস্তার ঘটেছে বিড়ালের। আর বন বিড়ালরা জঙ্গলে থাকার কারণে স্বভাবতই বেঁচে থাকার প্রয়োজনে তাদের শিকার করতে হয়।

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত